যমুনা রক্ষায় এখনই পদক্ষেপ নিন

[ad_1]

প্রতিদিন রাত তিনটা থেকে সকাল নয়টা পর্যন্ত খননযন্ত্র ও বাল্কহেড দিয়ে অবৈধভাবে বালু তোলা হচ্ছে। ফলে ভাঙনের মুখে পড়েছে শহড়াবাড়ি, বানিয়াজান স্পার, তীর সংরক্ষণ প্রকল্প, বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও জেগে ওঠা চরের কয়েক হাজার বিঘা আবাদি জমি। প্রতিদিন ১০ থেকে ২০টি খননযন্ত্র দিয়ে ৫০ থেকে ৬০ ফুট গভীর থেকে বালু তোলা হয় এবং বাল্কহেড দিয়ে এ বালু নেওয়া হয় সারিয়াকান্দি ও কাজীপুরে।

[ad_2]

Source link

Leave a Comment