টেকনাফের পৌর কাউন্সিলর মনিরুজ্জামানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

[ad_1]

এ বিষয়ে কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান বলেন, ২০০৭ সাল থেকেই তিনি নিয়মিত আয়কর দিচ্ছেন। দুদকের সম্পদের বিবরণীতে তিনি সঠিক তথ্য লিপিবদ্ধ করেছেন। দুদক কীভাবে আয়বহির্ভূত সম্পদের তথ্য পেল, তা তিনি জানেন না।

দুদক সমন্বিত কক্সবাজার জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মনিরুল ইসলাম বলেন, মনিরুজ্জামান দুদকের কাছে ৫৮ লাখ ৪৪ হাজার ২৫৬ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন করেছেন। এ ছাড়া জনপ্রতিনিধি হিসেবে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ৪ কোটি ৩১ লাখ টাকার সম্পদ অর্জন করেছেন বলে তথ্য মিলেছে, যা বিভিন্ন আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আরও তদন্ত হচ্ছে। তদন্তের স্বার্থে অভিযুক্ত কাউন্সিলরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্রেপ্তারও করা হতে পারে।

[ad_2]

Source link

Leave a Comment