ঢাকায় কমলেও স্বস্তিতে নেই গ্রামের মানুষ

[ad_1]

বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানির (নেসকো) রংপুর আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী শাহাদত হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, লোডশেডিং আগের চেয়ে কিছুটা কাটিয়ে ওঠা গেছে।

রাজশাহীতে পল্লী বিদ্যুতের লোডশেডিং বেশি। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি বলছে, সোমবার বৃষ্টি হওয়ায় চাহিদা কমে গেছে। রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মিলিকবাঘা গ্রামের কলেজ অধ্যক্ষ বজলুর রহমান বলেন, সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত এলাকায় বিদ্যুৎ ছিল না।

রাজশাহী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মহাব্যবস্থাপক (জিএম) একরামুল হক বলেন, বৃষ্টির কারণে চাহিদা কমায় দিনে লোডশেডিং দিতে হয়নি।

[ad_2]

Source link

Leave a Comment