নওগাঁয় কাঁচা মরিচের কেজি ২৪০ টাকা

[ad_1]

পৌর পাইকারি বাজারের ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলাম বলেন, বৃষ্টির কারণে বাজারে মরিচসহ বিভিন্ন সবজির সরবরাহ অনেক কমে গেছে। চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কমে যাওয়ায় ১৪-১৫ দিনের ব্যবধানে মরিচের দাম প্রায় তিন গুণ বেড়ে গেছে।

পৌর পাইকারি বাজার সমিতির সভাপতি সাইদুর রহমান বলেন, আগে প্রতি দিন বাজারে যেখানে ৫০ থেকে ৬০ মণ মরিচের আমদানি হতো, এখন সেখানে ৩০-৩৫ মণ মরিচের আমদানি হচ্ছে। শুধু মরিচ নয়, সব ধরনের সবজির সরবরাহ কমে গেছে। বৃষ্টির পানি জমে খেতের সবজি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এমন পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে। প্রতিবছর বর্ষায় সবজির দাম বাড়তি থাকে। এবারও আগামী এক-দেড় মাস সবজির দাম বাড়তি থাকতে পারে।

শহরের মাস্টারপাড়া এলাকার বাসিন্দা গোলাম রাব্বানী বলেন, বর্ষার কারণে গাছ নষ্ট হয়েছে অজুহাত দেখিয়ে ব্যবসায়ীরা দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু এমন পরিস্থিতি তো এখনো তৈরি হয়নি যে বাজারে মরিচ পাওয়া যাচ্ছে না। চাহিদা হিসাবে সরবরাহ ঠিক আছে। তারপরেও ব্যবসায়ীরা কারসাজি করে দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। অন্য সবজির দামও বাড়তি।

[ad_2]

Source link

Leave a Comment