মজনুকে দেখে শিখেছি, ভালোবাসা কী, কাকে বলে: মাহি

[ad_1]

নিজের মধ্যে অন্য আরেকজনের অস্তিত্ব, কেমন লাগছে, এক সংবাদকর্মীর করা প্রশ্নে মাহিয়া মাহি বলেন, ‘বোঝানো যাবে না। আমার জীবনে প্রথম ঘটনা এটি। এখনো ওভাবে বুঝতে পারছি না। তবে ঘটনাটি ঘটার পর থেকে দুই পরিবার থেকে আমার যে পরিমাণ যত্ন নেওয়া হচ্ছে, তাতে বুঝতে পারছি, কিছু একটা হতে চলেছে।’
এরই মধ্যে মাহি-রাকিবের অনাগত সন্তানকে ঘিরে দুই পরিবারে আনন্দ, উন্মাদনা শুরু হয়েছে। ছেলে হবে না মেয়ে, এখনো সেই খবর নিশ্চিত হওয়া না গেলেও সম্ভাব্য সন্তানের নামও ঠিক করে ফেলেছেন মাহি। বলেন, ‘আমি চাই, আমার মেয়ে হোক। আমার মন বলছে, আমার মেয়ে হবে। মেয়ে হলে আমার রেস্তোরাঁর নামে ফারিশতা রাখব। ছেলে হলে নাম ঠিক করিনি এখনো।’ তিনি বলেন, ‘এটি একটি আনন্দের খবর। এত বড় আনন্দের খবর মানুষ কেন লুকিয়ে রাখে জানি না। আমার কাছে এটি অত্যন্ত সুখের খবর। এটি লুকিয়ে রাখতে চাইনি। যদিও বাসার সবাই বলেছিল আরও কিছুদিন পর খবরটি দিতে। আমি শুনিনি, সবাইকে জানিয়ে দিয়েছি।’

[ad_2]

Source link

Leave a Comment