এলো ওয়ালটনের অরবিট সিরিজের প্রথম স্মার্টফোন

[ad_1]

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্মার্টফোনের নতুন সিরিজ ‘অরবিট’-এর প্রথম ডিভাইস বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। যার মডেল ‘অরবিট ওয়াইফিফটি’। এতে ব্যবহৃত হয়েছে এইচডি প্লাস রেজুলেশনের বিশাল পর্দা, ট্রিপল ব্যাক ক্যামেরা, শক্তিশালী প্রসেসর, র‌্যাম-রমসহ নজরকাড়া সব ফিচার।

ওয়ালটন মোবাইলের মার্কেটিং ইনচার্জ হাবিবুর রহমান তুহিন জানান, অরবিট’ সিরিজের স্মার্টফোন গ্রাহককে দেবে প্রযুক্তির এক নতুন দুনিয়ায় বিচরণের অভিজ্ঞতা।

ওয়ালটন মোবাইলের মার্কেটিং কো-অর্ডিনেটর রুবায়েত রহমান চৌধুরী জানান, নতুন এই স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৬.৮২ ইঞ্চির ফুল ল্যামিনেশন এইচডি প্লাস ভি-ড্রপ ডিসপ্লে। ২০:৯ অ্যাসপেক্ট রেশিওর পর্দার রেজ্যুলেশন ১৬৪০ বাই ৭২০ পিক্সেল। ফলে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার এবং ভিডিও দেখা, গেম খেলা, বই পড়া বা ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ে অনন্য অভিজ্ঞতা পাবেন গ্রাহক। আইপিএস ইনসেল প্রযুক্তির স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ধূলা ও আঁচড়রোধী ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস।

Techshohor Youtube

ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত। এতে ব্যবহৃত হয়েছে ২.০ গিগাহার্টজ গতির হেলিও এটুয়েন্টিটু এআরএম কর্টেক্স প্রসেসর। সঙ্গে রয়েছে পাওয়ারভিআর জিই৮৩০০ গ্রাফিক্স এবং ৪ গিগাবাইট র‌্যাম। ফলে এই ফোনের কার্যক্ষমতা ও গতি অনেক বেশি। বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধা মিলবে। ফোনটির অভ্যন্তরীণ মেমোরি ৬৪ গিগাবাইটের। যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ফোনটির কানেক্টিভিটি হিসেবে আছে ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৫, ওয়ারলেস ডিসপ্লে, ল্যান হটস্পট, ওটিএ এবং ওটিজি। সেন্সর হিসেবে রয়েছে প্রোক্সিমিটি, ওরিয়েন্টেশন (থ্রিডি), লাইট (ব্রাইটনেস), এক্সিলারোমিটার (থ্রিডি), গ্রাভিটি (থ্রিডি), ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, জিপিএস, এ-জিপিএস নেভিগেশন ইত্যাদি।

নতুন ফোনটির পেছনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ পিডিএএফ প্রযুক্তির অটোফোকাস এআই ট্রিপল ক্যামেরা। যার প্রধান সেন্সরটি ৫পি লেন্স সমৃদ্ধ ১৩ মেগাপিক্সেলের। আকর্ষণীয় সেলফির জন্য সামনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। উভয় ক্যামেরায় ফুল এইচডি ভিডিও ধারণ করা যাবে। রয়েছে ১/৩.০৬ ইঞ্চির সেন্সর, ফোরএক্স ডিজিটাল জুম, ফেস ডিটেকশন, টাচ ফোকাস, টাচ শট, স্মাইল শাটার, এন্টি-ফ্লিকার, সেলফ টাইমার, জিও ট্যাগিং, ডিসপ্লে ফেসিয়াল ইনফরমেশন, লোগো ওয়াটারমার্ক, টাইম ওয়াটারমার্ক, নরমাল মোড, প্রোফেশনাল মোড, পোটরেইট, হোয়াইট ব্যালান্স, প্যানারোমা, ফিল্টার মোড, টাইম ল্যাপস, কিউআর কোড, এআই মোডসহ অসংখ্য আকর্ষণীয় ফিচার।

পর্যাপ্ত পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ডিভাইসটিতে রয়েছে ৪২০০ এমএএইচ হাই-ডেনসিটি ব্যাটারি। ফোনটির অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ফেস আনলক, ভিওএলটিই বা ভোল্টি নেটওয়ার্ক সাপোর্টসহ ডুয়াল ফোরজি সিম, থিম ইঞ্জিন, স্মার্ট ওয়েক আপ, মোশন জেসচার, এআর স্টাইকার ভিডিও, রেকর্ডিং সুবিধাসহ এফএম রেডিও, ফুল এইচডি ভিডিও প্লে-ব্যাক ইত্যাদি।

মেটালিক গোল্ড, বেবি ব্লু এবং পাইন গ্রিন এই তিনটি আকর্ষণীয় রঙে ফোনটি বাজারে এসেছে। ভ্যাট ছাড়া ‘অরবিট ওয়াইফিফটি’ মডেলের ফোনটির মূল্য ১২,৯৯৯ টাকা।

দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা, মোবাইলের ব্র্যান্ড ও রিটেইল আউটলেটের পাশাপাশি ঘরে বসেই ই-কমার্স ওয়েবসাইট ওয়ালটন ই-প্লাজা (https://cutt.ly/1VDbSsG) এবং ওয়ালকার্ট (https://cutt.ly/FVSx7Mu) থেকে ফোনটি কেনা যাচ্ছে।

বাংলাদেশে তৈরি ‘অরবিট ওয়াইফিফটি’ স্মার্টফোনে ৩০ দিনের রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা রয়েছে। এছাড়া ১০১ দিনের মধ্যে প্রায়োরিটি বেসিসে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ক্রেতা বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন। স্মার্টফোনে এক বছরের এবং ব্যাটারি ও চার্জারে ছয় মাসের বিক্রয়োত্তর সেবা তো থাকছে।



[ad_2]

Source link

Leave a Comment