২০২৫ সালের মধ্যে দেশে ৫৫৫টি ‘জয় ডি-সেট সেন্টার’ প্রতিষ্ঠা করা হবে – পলক

[ad_1]

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে তিনটি ধাপে দেশে ৫৫৫টি “জয় ডি-সেট সেন্টার” প্রতিষ্ঠা করা হবে। এ সেন্টার সমূহ উপজেলা সদরের হাব হিসেবে গড়ে উঠবে।

দেশের তৃণমূল পর্যায়ে আইসিটি অবকাঠামো নির্মাণ এবং সম্প্রসারণের লক্ষ্যে জয় ডি-সেট সেন্টার স্থাপন করা হবে । Digital-Service Employment Training Center স্থাপনের বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এর মধ্যে সম্প্রতি আইসিটি বিভাগের সম্মেলন কক্ষে একটি দ্বি-পাক্ষিক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। চুক্তিতে আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো: মোস্তফা কামাল এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সেখ মোহাম্মদ মহসিন স্ব স্ব পক্ষে সই করেন।

Techshohor Youtube

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “জয় ডি-সেট সেন্টার” তরুণ প্রজন্মের কর্মসংস্থানের ঠিকানা । এ সেন্টারের মাধ্যমে উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করা হবে। তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত ভৌত অবকাঠামো শক্তিশালীকরণ করা সহ জনগণের দোরগোড়ায় ডিজিটাল সেবা আরও দ্রুত পোঁছে যাবে।

পলক বলেন, গত ১৩ বছরে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ আর্কিটেক্ট সজীব ওয়াজেদ জয়ের তত্ত্বাবধায়নে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ সফল ভাবে বাস্তবায়ন করেছি। এখন এ ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিত্তির ওপর দাড়িয়ে ২০৪১ সাল নাগাদ একটি সাশ্রয়ী, উদ্ভাবনী, জ্ঞানভিত্তিক, উচ্চ অর্থনীতির স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ উভয় দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, “জয় ডি-সেট সেন্টার” সমূহ ৫০০০ স্কয়ার বর্গফুটে নির্মিত হবে। প্রতিটি সেন্টারে ওয়ান স্টপ সার্ভিস ডেলিভারি, প্রশিক্ষণ ল্যাব, স্টার্ট আপ, যুবকদের জন্য প্লাগ এবং প্লে স্পেস, নেটওয়ার্ক অপারেশন সেন্টার (এনওসি) এবং সুইচ রুম থাকবে।



[ad_2]

Source link

Leave a Comment