ফাইভজি অপারেটরদের জন্য হুয়াওয়ের ট্রাম্পকার্ড

[ad_1]

আল-আমীন দেওয়ান, ব্যাংকক থেকে : ফাইভজি বিশ্বজুড়ে ব্যবসার অভাবনীয় নতুন নতুন ক্ষেত্র তৈরি করবে এমন আশাবাদ দিয়েই থেমে থাকেনি হুয়াওয়ে, নেটওয়ার্ক অপারেটরদের সঙ্গে সফল উদ্যোগও বাস্তবায়ন করে দেখিয়েছে তারা।

নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি গবেষণায় বরাবরই যে এগিয়ে থাকে হুয়াওয়ে, এসব সে কথাই বলে।

ব্যাংককে অনুষ্ঠিত হওয়া ১৩তম গ্লোবাল মোবাইল ব্রডব্যান্ড ফোরামে (এমবিবিএফ) হুয়াওয়ের আইসিটি স্ট্র্যাটেজি ও মার্কেটি বিভাগের প্রেসিডেন্ট পেং সং তুলে ধরছিলেন এসব সফলতার গল্প ও ভবিষ্যত রূপরেখা।

Techshohor Youtube
এমবিবিএফ-এ হুয়াওয়ের আইসিটি স্ট্র্যাটেজি ও মার্কেটি বিভাগের প্রেসিডেন্ট পেং সং তুলে ধরছেন ফাইভজির সফলতার গল্প ও ভবিষ্যত রূপরেখা।

‘ফাইভজি বিজনেস সাকসেস ইজ এক্সিলারেটিং’ বিষয়ে তাঁর উপস্থাপনায় পেং সং বলছিলেন, এবারের সম্মেলনে জি.ইউ.আই.ডি.ই ব্যবসায়িক ব্লুপ্রিন্টের নির্দেশনা, গিগাভার্সের অভিজ্ঞতা দেবে এমন টেকসই পরিবেশবান্ধব নেটওয়ার্ক গঠনে গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা।

তাঁর উপস্থাপনায় উল্লেখ করেন, ফাইভজি নেটওয়ার্কের ব্যবহার অনেক বেড়েছে ও ফাইভজি ব্যবসা বৃদ্ধির একটি ভালো প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

তিনি বলছেন, ফাইভজিতে বিনিয়োগ করা অর্থ তুলে আনতে ফাইভজি টিওসি ব্যবহার নেটওয়ার্কগুলোর জন্য অত্যাবশকীয়। যেখানে ব্যবসায় সফলতা তারা নিজের চোখে দেখতে পাচ্ছেন।

‘বর্তমানের ভিডিও সেবাগুলো ফাইভজির সুবাদে এইচডি অভিজ্ঞতা লাভ করছে। আর নতুন নতুন সক্ষমতা যোগ হওয়ায় নেটওয়ার্ক মালিকরা নতুন করে চার্জ আরোপ করতে পারছেন। উভয় লাইভস্ট্রিমই আপলিংক সক্ষমতা ও ল্যাটেন্সি অভিজ্ঞতার সুযোগ সৃষ্টি করে। এগুলোই ব্যবসা থেকে লাভবান হওয়ার জন্য নেটওয়ার্ক মালিকদের কাছে ট্রাম্পকার্ড’ বলছিলেন পেং সং।

উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, বিশ্বের সব ফাইভজি নেটওয়ার্কগুলোর মধ্যে ৪০ শতাংশই ওটিটির সাথে প্যাকেজ দিয়ে থাকে। এটি ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধির ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখে। ফোরজি এফডব্লিউএর তুলনায় ফাইভজির টিওএইচ নতুন ব্যবসায়িক সুযোগ উন্মোচন করে। এসব ব্যবসার মধ্যে প্রিমিয়াম হোম ও রেটভিত্তিক ব্যবসায়িক মডেল। এই প্রিমিয়াম হোম মডেল গেমিং, হাই কোয়ালিটি ভিডিও ও রিমোট অফিসের ক্ষেত্রে ভালো সফলতা দেখিয়েছে।

‘এছাড়াও ডাউনলিনক, আপলিনক ও ল্যাটেন্সির মতো বিভিন্ন দিক উন্মোচন করে নেটওয়ার্ক সক্ষমতার পূর্ণ ব্যবহার নিশ্চিত করে। অন্যদিকে রেটভিত্তিক ব্যবসায়িক মডেলের মাধ্যমে উচ্চমান ও দামি সেবার পাশাপাশি ভিন্ন ভিন্ন রেট নিশ্চিত করে।
ফাইভজির টিওবি উন্নয়ন বিশ্বব্যাপি খুব দ্রুত হচ্ছে’ বলেন তিনি।

উপস্থাপনায় তিনি জানান, চলতি বছরের আর্থিক হিসাব, জিএসএ রিপোর্ট ও তৃতীয় পক্ষের দেয়া তথ্য অনুযায়ি, চলতি বছর চাইনিজ নেটওয়ার্কগুলোর ফাইভজি টিওবি সেবা থেকে পাওয়া আয় ৯ বিলয়ন ইউয়ান ছাড়িয়ে যাবে। আর এর বার্ষিক প্রবৃদ্ধির হার হবে ২০০ শতাশ। যেখানে চীনের বাইরে এই ফাইভজি প্রাইভেট নেটওয়ার্কটির ব্যাপ্তি ১০০ শতাংশের বেশি হবে।

পেং সং বলছিলেন, বৈশ্বিক ফাইভজি অপারেটরদের কাছে এই সফলতার গল্পগুলো পৌঁছাবেন তারা। এছাড়াও টিওসি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বিনিয়োগ, টিওএইচ এর নতুন অ্যাপ্লিকেশন আরও সমৃদ্ধ করতে কাজ করে যাবে হুয়াওয়ে।

২৭ অক্টোবর/ আরএপি/এএডি



[ad_2]

Source link

Leave a Comment